• ১৭ এপ্রিল ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কমরেড অরবিন্দ আচার্য্যরে জীবনাবসান ওয়ার্কার্স পার্টির শোক

0

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি নড়াইল জেলা কমিটির সদস্য কমরেড অরবিন্দ আচার্য্যরে মৃত্যুতে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা এক বিবৃতিতে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন। তিনি আজ ২২ মে সকাল ১১ঃ৪৫ মিঃ ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয় হাসপাতালে শেষ নিঃশ^াস ত্যাগ করেন। তিনি অসুস্থ হয়ে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭৯ বছর। তিনি ১ কন্যা, ১ পুত্র সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। কমরেড অরবিন্দ আচার্য্য ষাটের দশকে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের রাজনীতির সাথে যুক্ত হয়েছিলেন। তিনি ছাত্র জীবন শেষে শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত হন। দীর্ঘ ৩৭ বছর লোহাগড়া পাইলট হাইস্কুলের শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে ঐ স্কুলেরই সহকারী প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োজিত হন। মুক্তিযুদ্ধের পর তিনি ওয়ার্কার্স পার্টির রাজনীতির সাথে সক্রিয়ভাবে কাজ করেন। তিনি ২০০৬ সালে নড়াইলের লোহাগড়া পৌরসভার মেয়র পদে প্রতিন্দন্দ্বিতা করেন। নেতৃবৃন্দ তার শোক সন্তপ্ত পরিবার ও অসংখ্য ভক্ত-গুণগ্রাহীর প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
তার মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য কমরেড কামরূল আহসান, কমরেড মুস্তফা লুৎফুল্লাহ এমপি, কেন্দ্রীয় সদস্য কমরেড মোস্তফা আলমগীর রতন, পার্টির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহবায়ক কমরেড কিশোর রায়, পার্টির ঢাকা মহানগর উত্তরের আহবায়ক কমরেড সাদাকাত হোসেন খান বাবুল, কমরেড মুর্শিদা আখতার নাহার, কমরেড বেলাল বাঙালি হাসপাতালে উপস্থিত হন। পার্টির নেতৃবৃন্দ কমরেড অরবিন্দ আচার্য্যরে মরদেহে পুষ্পার্ঘ দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

Share.