• ৪ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা কমরেড শফিউদ্দিন আহমেদের মৃত্যু, ২০ নভেম্বর শোক দিবস

0

“বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো গভীর দুঃখের সাথে জানাচ্ছে যে, পার্টির পলিটব্যুরোর সাবেক সদস্য, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি স্কপের সাবেক সমন্বয়ক বষিয়ান শ্রমিক নেতা নারায়ণগঞ্জের পুরোধা জননেতা শফিউদ্দিন আহমেদ আজ ১৫ নভেম্বর ভোররাত ৩.২০ মিঃ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে মৃত্যুবরণ করেছেন (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহে রাজেউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। তিনি গত দুইবছর যাবত বাধক্যজনিত কারণে বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। গত একমাস যাবত প্রথমে বারডেম হাসপাতাল পরে ধানমন্ডি ক্লিনিক ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্য্যাকেন্দ্রে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পার্টির ১০ম কংগ্রেস তাঁকে আজীবন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হিসাবে নির্বাচিত করে।
তিনি ১৯৭৮ সালে প্রথমে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (লেনিনবাদী)র সাথে যুক্ত হন। পরবর্তীতে লেনিনবাদী পার্টি ওয়ার্কার্স পার্টি হিসাবে আত্মপ্রকাশ করলে তিনি প্রথমে নারায়ণগঞ্জের সম্পাদক ও পরে কেন্দ্রীয় কমিটি ও পলিটব্যুরোর সদস্য হন।
সাধারণ বীমা কর্মচারী ইউনিয়নের মাধ্যমে তিনি শ্রমিক আন্দোলনে যোগ দেন এবং পরবর্তীতে তিনি সাধারণ বীমা কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি হন। নারায়ণগঞ্জে জুট বেইলিং প্রেস শ্রমিক ইউনিয়নসহ নারায়ণগঞ্জের অসংখ্য শ্রমিক ইউনিয়ন তাঁর হাতে তৈরী বিশেষ করে গার্মেন্টস ইউনিয়ন গঠনের ব্যাপারে তিনি নেতৃস্থানীয় ভূমিকা রাখেন। জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনে সভাপতি কমরেড আবুল বাশারের মৃত্যৃর পর তিনি পাটকল শ্রমিক কর্মচারীদের আন্দোলনকে এগিয়ে নেন এবং জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি হিসাবে শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ তথা স্কপের সমন্বয়কের ভূমিকা পালন করেন।
ব্যক্তিজীবনে নির্মোহ ও নিরহংকারী শফিউদ্দিন আহমেদ মৃত্যুকালে ৫ ছেলে, ১ মেয়ে, নাতি-নাতনী ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। নারায়ণগঞ্জ শহীদ মিনারে তাঁকে নারায়ণগঞ্জের জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ১৪ দল, নারায়নগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আইভী রহমান পক্ষে, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি কেন্দ্রীয় কমিটি, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটি, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, বাসদ, জাসদসহ রাজনৈতিক দল, শ্রমিক, যুব, ছাত্র ও সাংস্কৃতিক সংগঠন থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন ও বক্তব্য রাখেন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটবুরোর সদস্য কমরেড আনিসুর রহমান মল্লিক, মন্টু ঘোষ, হাফিজুর রহমান, হাফিজুর ইসলাম, আবু নাঈম বিপ্লব প্রমুখ। পরে নারায়ণগঞ্জের পাঠানটুলী টেকনিক্যাল মাঠে জানাজা নামাজের পর তাঁকে পাঠানটুলী কবরস্থানে সমাহিত করা হয়।

২০ নভেম্বর ওয়ার্কার্স পার্টির শোক দিবস:
বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, কমরেড শফিউদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন। ওয়ার্কার্স পার্টি আগামী ২০ নভেম্বর ২০২০ তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শোক দিবস পালন করবে। পার্টির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পার্টির সকল ইউনিটকে যথাযথ যোগ্য মর্যদায় ২০ নভেম্বর শোক দিবস পালনের আহবান জানিছেন।

Share.

Leave A Reply