• ২৬ অক্টোবর ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ১০ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

গণমানুষের মুক্তির লক্ষ্যে নিরন্তর সংগ্রামই ছিল কমরেড সাইদের যাপিত জীবন-রাশেদ খান মেনন

0

আত্মত্যাগ, সততা, আদর্শনিষ্ঠার ব্রতই মানুষকে মানবিক করে তোলে, এটাই কমিউনিস্ট রাজনৈতিক মূল্যবোধ। কমরেড সাইদ তার সারা জীবন দিয়ে আমাদের এটাই শিখিয়েছেন। মানুষের সাহায্যে হাত বাড়িয়ে দেয়া, গণমানুষের মুক্তির লক্ষ্যে নিরন্তর সংগ্রামই ছিল কমরেড সাইদের যাপিত জীবন।

আজ ২৩ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টায় বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি আয়োজিত কমরেড শেখ সাইদুর রহমান সাইদের ভার্চুয়াল স্মরণসভার সভাপতির বক্তব্যে জননেতা কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, সোভিয়েত সমাজতন্ত্রের বিপর্যয়ের পরে নয়া উদারনীতির যে ধারা বিশ্বকে গ্রাস করেছে তার ফলে রাজনৈতিক মূল্যবোধের চরম অবক্ষয় ঘটেছে। আর তাই আত্মস্বার্থপরায়নতাই হয়ে দাঁড়িয়েছে মানুষের প্রধানতম বৈশিষ্ট্য। তার সাথে যুক্ত হয়েছে তথ্য-প্রযুক্তি ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার নতুন দুনিয়া। যেখানে এই মানবিকতার অবক্ষয়ের কাছে আত্মসমর্পণ করা যাবে না। কমরেড সাইদ তার শ্রমিক-কৃষক রাজনীতি ও পার্টির দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়ে সেই লড়াইয়ের মূর্ত প্রতীক হয়ে জীবন সমাপন করলেন। জননেতা মেনন কমরেড সাইদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, প্রবীণ কমরেডরা একে একে পৃথিবী থেকে চলে যাচ্ছেন, সবাইকেই একদিন মৃত্যুকে বরণ করতে হবে। এখন পার্টি ও গণমানুষের রাজনীতির দায়িত্ব নিতে হবে নতুনদের, তরুণ ও উদীয়মানদের মাঝেই খুঁজতে হবে ভবিষ্যৎ লড়াইয়ের সহযোদ্ধা।

পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড সুশান্ত দাসের সঞ্চালনায় এই সভায় আরো বক্তব্য রাখেন পলিটব্যুরোর অন্যতম সদস্য কমরেড আনিসুর রহমান মল্লিক, কমরেড মাহমুদুল হাসান মানিক, কমরেড নুর আহমদ বকুল প্রমুখ। সভায় পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা এমপির লিখিত বক্তব্য পাঠ করা হয়। বক্তারা কমরেড সাইদের জীবন নিয়ে স্মৃতিচারণ, বিভিন্ন আন্দোলনে তাঁর লড়াকু ভূমিকা, দায়িত্বনিষ্ঠা, পার্টিজান মানসিকতা সর্বোপরি কমিউনিস্ট মূল্যবোধসম্পন্ন মানুষ হিসেবে তাঁর ঔজ্জ্বল্য নিয়ে আলোচনা করেন।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কন্ট্রোল কমিশনের চেয়ারম্যান, সাবেক সংসদ সদস্য, খুলনা জেলা কমিটির সাবেক সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) কমরেড শেখ সাইদুর রহমান সাইদ গত ২২ আগস্ট রবিবার সকাল ৬টায় খুলনা ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৭০ বছর বয়সে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

Share.