• ২৬ অক্টোবর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
  • ১০ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মেননের পক্ষে কাজ করছেন আ.লীগের নেতা-কর্মীরা

0

ঢাকা–৮ আসন থেকে গত দুটি সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী রাশেদ খান মেননের চূড়ান্ত মনোনয়নের ব্যাপারে দলের উচ্চপর্যায় থেকে সবুজসংকেত দেওয়া হয়েছে। এমনটিই জানাচ্ছেন আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা। তাঁরা বলছেন, দলের নির্দেশনা অনুসারে ইতিমধ্যে তাঁরা রাশেদ খান মেননের পক্ষে নির্বাচনী প্রস্তুতির কাজ শুরু করেছেন।

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের অন্যতম শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি। পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের পাশাপাশি এ আসন থেকে নির্বাচন করতে ক্ষমতাসীন দলের বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওসার এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী মনোনয়ন ফরম তুলেছেন। তাঁদের মধ্যে দেলোয়ার হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্জেন্ট জহুরুল হক হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন মোল্লা মো. আবু কাওসার। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সমাজকল্যাণ সম্পাদক ছিলেন।

এই সংসদীয় আসনের আওতাভুক্ত রমনা, শাহবাগ ও মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, নির্বাচনী প্রস্তুতির জন্য শান্তিনগরে রাশেদ খান মেননের নির্বাচনী প্রচার কার্যালয়ে দুই দিন ধরে দফায় দফায় বৈঠক হয়েছে। দলীয় নেতা–কর্মীদের নিয়ে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রস্তুতির কাজ চলছে।

২০০৮ সালের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত নবম সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থী ছিলেন রাশেদ খান মেনন। নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর চেয়ে ৩৩ হাজার ৯৮১ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হন তিনি। ওই নির্বাচনে তাঁর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন চারদলীয় জোটের প্রার্থী বিএনপির নেতা হাবিব-উন-নবী খান। ২০১৪ সালের নির্বাচন বিএনপি বর্জন করে। ওই নির্বাচনেও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন রাশেদ খান মেনন।

এবারও চূড়ান্ত মনোনয়নের ব্যাপারে আশাবাদী মেনন প্রথম আলোকে বলেন, ‘আশাবাদী না হলে ফরম তুলতাম না। এই সংসদীয় এলাকার আওয়ামী লীগের নেতা–কর্মীরা সবাই আমার সঙ্গে আছেন। সবাই সহযোগিতা করছেন।’

এ বিষয়ে শাহবাগ থানা আওয়ামী লীগের জি এম আতিকের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘শেষ পর্যন্ত দলের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। নৌকা যাঁর সঙ্গে আছে, আমরা তাঁর সঙ্গেই থাকব।’

মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ফারহানা ইসলাম বলেন, ‘নির্বাচনী প্রস্তুতির জন্য মেনন ভাইয়ের শান্তিনগরের অফিসে একাধিক বৈঠক হয়েছে। এখন ওয়ার্ডে ওয়ার্ড চলছে কমিটি গঠনের কাজ।’

২০০৮ সালের নির্বাচনের আগে আসন পুনর্বিন্যাস করে রাজধানীর মতিঝিল-রমনা-পল্টন থানা নিয়ে গঠন করা হয় ঢাকা-৮ সংসদীয় আসন। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৮, ৯, ১০, ১১, ১২, ১৩, ১৯, ২০ ও ২১ নম্বর ওয়ার্ড এ আসনের আওতাভুক্ত। এই নয় ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। এর মধ্যে তিনজন কাউন্সিলরের সঙ্গে কথা হয় এই প্রতিবেদকের। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তাঁরা প্রত্যেকেই বলেছেন, বৃহত্তর স্বার্থে দলের সিদ্ধান্ত মোতাবেক তাঁরা রাশেদ খান মেননের পক্ষে কাজ করছেন।

Share.

Leave A Reply